হিন্দুত্ব-হিন্দুর প্রকৃত ইতিহাস-Hindutva-Hindur Prakrita Itihas by Chandranath Basu-1892

হিন্দুত্ব

 হিন্দুর প্রকৃত ইতিহাস 

শ্রী চন্দ্রনাথ বসু প্রণীত।

প্রথম সংস্করণ।

কলিকাতা।

২০১ নং কর্ণওয়ালিষ ষ্ট্রীট, মেডিক্যাল লাইব্রেরী হইতে
শ্রীযুক্ত গুরুদাস চট্টোপাধ্যায় কর্তৃক প্রকাশিত।
১০০।১নং মেছুয়াবাজার রােড বাল্মীকি যন্ত্রে
শ্রী বিশ্বনাথ নন্দী দ্বারা মুদ্রিত।
১৮৯২।
মুল্য ১॥০ টাকা।

হিন্দুত্ব-হিন্দুর প্রকৃত ইতিহাস

চন্দ্রনাথ বসু

ইউরােপ যাহাকে ইতিহাস বলে আমাদের তাহা নাই। থাকিলে যে মন্দ হইত তাহা নয়। কোন কোন বিষয়ে ভালই হইত। কিন্তু না থাকিবার দরুণ যে বিষম অনিষ্ট হইয়াছে এরূপ মনে করাও বােধ হয় ঠিক নয়। ইতিহাসের গুঢ়তম কথা, মানসিক প্রকৃতি। মানসিক প্রকৃতি যাহাতে পাওয়া যায় না তাহা ইতিহাস বলিয়া উক্ত হইলেও ইতিহাস নয়, ভাটের কাহিনী মাত্র। ইউরােপে যে সমস্ত গ্রন্থ ইতিহাস বলিয়া পরিচিত তাহার অধিকাংশ ভাটের কাহিনী, ইতিহাস নয়। সংস্কৃতে সেরকম গ্রন্থ নাই বলিয়া দুঃখ করিবার কারণ নাই।

 হিন্দুদিগের সেরকম গ্রন্থ নাই থাকুক, কিন্তু তাহাদের ইতিহাস চাই। অপর সকলেরও যেমন ইতিহাস আবশ্যক হিন্দুদিগেরও তেমনি ইতিহাস আবশ্যক। কারণ ইতিহাসেই মানুষের উদাহরণ ও আদর্শ থাকে। যে উদাহরণ ও আদর্শ দেখিয়া মানুষ উৎসাহিত উত্তেজিত ও পরিচালিত হয় তাহা ইতিহাসেই থাকে, অথবা তাহাই ইতিহাস। আর তাহা দেখিবাই মানুষকে বুঝিতে হয়, তাহা ছাড়া অতঃপর আর কি আবশ্যক। সে উদাহরণ ও আদর্শের মূল বা গূঢ় কারণ, মানসিক প্রকৃতি। তাহার বাহ্যপ্রমাণ আচারানুষ্ঠান প্রভৃতি এবং সাহিত্য। হিন্দুর সাহিত্যও আছে, আমরানুষ্ঠানাদিও আছে।

অতএব যাহাতে হিন্দুর মানসিক প্রকৃতি পাওয়া যাইতে পারে, তাহার কিছু অভাব নাই। প্রকৃত ইতিহাসের উপকরণ আমাদের পুর্ণ মাত্রায় আছে।

Note: Complete Book to be added


%d bloggers like this: