ইতিহাস : – উত্তরে উত্তরপাড়া (Uttare Uttarpara-Alak Bhattacharyya)

কত ইতিহাস ! উত্তরপাড়া মিউনিসিপালিটি / বর্তমান নাম উত্তরপাড়া কোতরং মিউনিসিপালিটি স্থাপন হয় ১৮ এপ্রিল ১৮৫৩, উদ্যোগী ছিলেন জমিদার জয়কৃষ্ণ মুখার্জী এবং আরও অনেকে। ১৮৪৩ পর্যন্ত উত্তরপাড়া ছিল ২৪ পরগনার অধীন । থানা বৈদ্দোবাটি। পরবর্তী কালে হুগলী জেলার অধীন , শ্রীরামপুর মহকুমার অন্তর্গত । থানা উত্তরপাড়া। বড়িশার – বেহালার সাবর্ণ রায় চৌধুরী পরিবারের জনক লক্ষীকান্ত রায়চৌধুরীর বড় ছেলের নাতি রত্নশ্বের রায়চৌধুরী শেওড়াফুলির রাজ মনোহর রায় কাছ থেকে ১৭০৯ সালে চকবালির উত্তরাংশ কিনে পত্তন করেন উত্তরপাড়া। সে কারণেই কি নাম উত্তরপাড়া ?

ইতিহাস : – উত্তরে উত্তরপাড়া

Alok Bhattacharyya

অলক ভট্টাচাৰ্য।

 

দেখিতে গিয়েছি পর্বতমালা / দেখিতে গিয়েছি সিন্ধু / দেখা হয় নাই…… , আরে না না এই বিখ্যাত কবিতাটি আমি শোনাচ্ছি না, শুধু উল্লেখ করলাম মাত্র।

সত্যি তো ঘরের কাছে কত কি দেখার আছে আমরা কি মুখ তুলে দেখি ? যেমন ধরুন উত্তরপাড়া ।

এক অতি সমৃদ্ধশালী প্রাচীন ঐতিহাসিক নগর, বয়সে কলকাতা মহানগরের থেকে মোটেই ছোট নয় । আচ্ছা, উত্তরপাড়া নাম কেন ? আমার নাতনি উত্তর দিলো, উত্তরে তাই উত্তরপাড়া। তা হলে, কার উত্তরে ? উত্তর আছে মানচিত্রে । হাওড়ার শেষ উত্তরে বালিগ্রাম / এখন শহর। তার লাগোয়া উত্তরে বালিখাল পেরিয়ে হুগলি জেলার প্রথম শহরটি উত্তরপাড়া। একটি অতি সুন্দর তোরণ আপনাকে স্বাগত জানাবে, ইউ আর নাও উত্তরপাড়া। ডানদিকে ঘাড়টা কাত করুন , দেখতে পাবেন গঙ্গার ওপর পারে রাণীরাসমনির সেই বিখ্যাত ভবতারিণী মন্দির, পরমাহংসদেবের লীলাক্ষেত্র। জি টি রোড ধরে উত্তর মুখো পূর্বে মা গঙ্গাকে সাক্ষী রেখে এগিয়ে চলুন। দেখবেন রাস্তার দু-ধারে মাঝে মাঝে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের ছবি সহ পরিচয় তাদের অবদান স্থান মাহাত্ম ।

কত ইতিহাস ! উত্তরপাড়া মিউনিসিপালিটি / বর্তমান নাম উত্তরপাড়া কোতরং মিউনিসিপালিটি স্থাপন হয় ১৮ এপ্রিল ১৮৫৩, উদ্যোগী ছিলেন জমিদার জয়কৃষ্ণ মুখার্জী এবং আরও অনেকে। ১৮৪৩ পর্যন্ত উত্তরপাড়া ছিল ২৪ পরগনার অধীন । থানা বৈদ্দোবাটি। পরবর্তী কালে হুগলী জেলার অধীন , শ্রীরামপুর মহকুমার অন্তর্গত । থানা উত্তরপাড়া। বড়িশার – বেহালার সাবর্ণ রায় চৌধুরী পরিবারের জনক লক্ষীকান্ত রায়চৌধুরীর বড় ছেলের নাতি রত্নশ্বের রায়চৌধুরী শেওড়াফুলির রাজ মনোহর রায় কাছ থেকে ১৭০৯ সালে চকবালির উত্তরাংশ কিনে পত্তন করেন উত্তরপাড়া। সে কারণেই কি নাম উত্তরপাড়া ? প্রশ্নটা তোলা রইলো ।

চলুন জি টি রোড ধরে যেতে যেতে ইতিহাসের পাতা ওল্টাই। সাবর্ণ রায় চৌধুরী পরিবারের জামাই জয় কৃষ্ণ মুখার্জী । ইনি এবং ওনার বংশধররা ছিলেন শিক্ষা শিল্প সাহিত্য শুধু অনুরাগী বললে কম বলা হবে ছিলেন প্রসারকও । উত্তরপাড়ার শ্রীবৃদ্ধি তে এই পরিবারের অবদান অসীম। ওই দেখুন ডান দিকে গঙ্গার ধারে রাজা প্যারীমোহন কলেজ। সিনেমা হল গৌরী টকিস। চলে এসেছি উত্তরপাড়া বাজার। অনেক বার দেখেছেন তবু আরেক বার দেখুন অতি বিশাল অতি প্রাচীন পাবলিক লাইব্রেরি, জয়কৃষ্ণ পাঠাগার । এশিয়ার প্রথম নি:শুল্ক সাধারণ পাঠাগার। প্রচুর দুর্লভ দুষ্প্রাপ্য পুস্তকের সংগ্রহ । ঐতিহাসিক ভবন। কে আসেনি এখানে, ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগর, বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, মাইকেল মধুসূদন, রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর , কেশব চন্দ্র সেন, ঋষি অরবিন্দ, নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোস। শুধু উত্তরপাড়া নয় সারা বাংলার গর্ব জয়কৃষ্ণ পাঠাগার ।

এবার জি টি রোড এর পশ্চিমে তাকান, সুবে বাংলার প্রথম মিউনিসিপালিটি, উত্তরপাড়া কোতরং মিউনিসিপালিটি। এখানে পদার্পন করেছিলেন নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোস। এগিয়ে চলুন , জমজমাট উত্তরপাড়া বাজার। রাতে দু সারিতে বসেছে মাছের বাজার, আহা ! চলে এসেছি দোলতলায় । দোলের সময় এখানে বসে মেলা । কাছেই খেয়াঘাট , লঞ্চ করে ওপারে গেলে পৌঁছে যাবেন আরিয়াদহ। উত্তরপাড়া আসলে জমিদার পাড়া। তার সাক্ষী, রাজা জমিদার দের বিশাল বিশাল প্রাসাদ। উত্তরপাড়া স্টেশন থেকে জি টি রোড এর দিকে আসতে দেখতে পাবেন উত্তরপাড়া রাজবাড়ী, বর্তমানে উত্তরপাড়া হাসপাতাল। জয়কৃষ্ণ মুখার্জী স্ট্রিট ধরে গিয়ে পাবেন ঘড়ি বাড়ী। আসলে প্রাসাদ। এক সময় গোম্বুজ এর ওপর ছিল ঘড়ি , উত্তরপাড়া বাসীকে জানান দিতো সময় বহিয়া যায় নদীর স্রোতের প্রায় । সে জমিদার রাজ আর নেই এখন প্রোমোটার রাজ।

শিক্ষায় উত্তরপাড়া চিরকালই এগিয়ে।অমরেন্দ্র মুখোপাধ্যায় এর নামে অমরেন্দ্র বিদ্যাপীঠ উত্তরপাড়ার গর্ব । একটু এগিয়ে ভদ্রকালী, দেবী ভদ্রকালীর নাম অনুসারে। আছে আরও অনেক প্রাচীন মন্দির, তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য তারাক্ষেপা মন্দির। ভারত সেবাআশ্রম এর আশ্রম মন্দিরও আছে । আছে ছোটদের জন্য পার্ক। আছে আরও অনেক কিছু । স্বল্প পরিসরে উত্তরপাড়ার গৌরব গাঁথা শেষ করা যাবে না। এ রচনা তার আভাস মাত্র । তবে দুঃখ একটাই বিশাল বিশাল জমিদার বাড়ী গুলি সংরক্ষনের অভাবে ধ্বংস হচ্ছে। আর তা প্রোমোটারের হাতে যাচ্ছে। কয়েক বছরের মধ্যে এখানে হয়েছে অনেক মাল্টিস্টোরিড বিল্ডিং, শপিং মল, আধুনিক কমপ্লেক্স। ভ্রম হয়, এই কি সেই সুপ্রাচীন উত্তরপাড়া !

Alok Bhattacharyya , Advocate Howrah District Court

19/03/2022


%d bloggers like this: