Checkout Forums হিন্দু আইনে উইলের কোনও ব্যবস্থা দেখিতে পাওয়া যায় না – শ্রীবিভূতিভূষণ মিত্র

Viewing 2 posts - 1 through 2 (of 2 total)
  • Author
    Posts
  • #118376 Reply
    advtanmoy
    Keymaster

    হিন্দু আইনে উইলের ন্যায় কোনও ব্যবস্থা দেখিতে পাওয়া যায় না। সম্ভবতঃ মৃত্যুর পর সম্পত্তির কি হইবে তাহা কেহ ভাবিতেন না, এবং সেজন্য কেহ উইলও করিতেন না। যা
    [See the full post at: হিন্দু আইনে উইলের কোনও ব্যবস্থা দেখিতে পাওয়া যায় না – শ্রীবিভূতিভূষণ মিত্র]

    #118377 Reply
    advtanmoy
    Keymaster

    দান-GIFT

    মালিক তাঁহার সম্পত্তি ইচ্ছামত দান করিতে পারেন। স্থাবর হউক, অস্থাবর হউক, পৈতৃক হউক, স্বোপার্জিত হউক, সকল সম্পত্তিই তিনি দান করিতে পারেন। তবে কোনও সম্পত্তি দান করিতে হইলে, কিরূপ ভাবে দান করিতে হয় এবং কাহাকে দান করিতে পারা যায়, ইত্যাদি সম্বন্ধে হিন্দু আইনে কতকগুলি বিধান আছে, তাহা পালন করা অবখ্য কৰ্ত্তব্য, না করিলে দান অসিদ্ধ হইয়া যায়।

    দানকার্য্যে কি কি আবশ্যক

    (১) প্রথমতঃ, হিন্দু আইনে বিধান আছে যে,”চেতনোদ্দেশবিশিষ্ট ত্যাগ”কে দান বলা যায়; অর্থাৎ দান করিতে হইলে কোনও চেতনাবিশিষ্ট ব্যক্তিকে দান করিতে হইবে। সেজন্য, যে ব্যক্তি মরিয়া গিয়াছে বা যে ব্যক্তি এখনও জন্মায় নাই তাহাকে দান করিতে পারা যায় না (১৮ উইক্‌লি রিপোর্টার ৩৫৯)। যে ব্যক্তি মাতৃগর্ভস্থ, আইনের চক্ষে সে জন্মগ্রহণ করিয়াছে বলিয়া গণ্য হয়, সুতরাং তাহাকে দান করিতে পারা যায়।

    (২) দ্বিতীয়তঃ, যাঁহাকে সম্পত্তি দান করা হইয়াছে, তিনি উহা গ্রহণ করিবেন, তিনি নিজে গ্রহণ করিতে না পারিলে তাহার পক্ষে অপর কেহ গ্রহণ করিবেন। নাবালককে সম্পত্তি দান করিলে তাহার অভিভাবক গ্রহণ করিতে পারে; কোনও মন্দিরে সম্পত্তি দান করিলে মন্দিরের পুরোহিত বা সেবাইত তাহা গ্রহণ করিতে পারে (জগদীন্দ্র বঃ হেমন্ত, ৩২ কলিকাতা ১২৯ প্রিভিকৌন্সিল)। যদি গ্রহণ করিবার পুৰ্ব্বে দানপাত্রের মৃত্যু হয়, তাহা হইলে দান অসিদ্ধ হইয়া যাইবে।

    (৩) তৃতীয়তঃ, হিন্দু আইনে এই বিধান আছে যে, দানের সম্পত্তিতে দাতা গ্রহীতাকে দখল সমৰ্পণ করিবেন। কিন্তু এই বিধানটা এখন সম্পত্তি হস্তান্তর আইনের ১২৩ ধারা দ্বারা রহিত হইয়াছে। উক্ত আইনের ১২৩ ধারায় এই নিয়ম বিধিবদ্ধ আছে যে, স্থাবর সম্পত্তি দান করিতে হইলে একটী দানপত্র সম্পাদন করিতে হইবে, ঐ দানপত্র রেজিষ্টারী করিতে হইবে, এবং উহাতে অনূ্যন দুইজন সাক্ষী থাকা আবশ্যক; নচেৎ দান অসিদ্ধ হইবে; আর যদি অস্থাবর সম্পত্তি হয়, তাহা হইলে দাতা গ্রহীতাকে সম্পত্তিতে দখল সমৰ্পণ করিবেন অথবা রেজেষ্টারীকৃত দানপত্র সম্পাদন করিবেন।

    সুতরাং এখন কোনও স্থাবর সম্পত্তি দান করিতে হইলে, হিন্দু আইনের বিধান অনুসারে শুধু দখল সমর্পণ করিয়া বাচনিক ভাবে দান করা চলিবে না; এখন সম্পত্তি হস্তান্তর আইনের বিধান পালন করিতে হইবে, নচেৎ দান সিদ্ধ হইবে না। পূৰ্ব্বোক্ত সম্পত্তি হস্তান্তর আইনের বিধানানুসারে এই আইন দাড়াইয়াছে যে, সম্পত্তি যদি অস্থাবর হয়, তাহা হইলে দানপত্র সম্পাদিত হইবে অথবা দাতা কর্তৃক সম্পত্তিতে গ্রহীতাকে দখল সমৰ্পণ করিতে হইবে; আর যদি সম্পত্তি স্থাবর হয়, তাহা হইলে দানপত্র সম্পাদন করিতেই হইবে, সম্পত্তিতে দখল সমর্পণ করিবার কোনও প্রয়োজন নাই (কালিদাস বঃ কানাইলাল, ১১ কলিকাতা ১২১ প্রিভি কৌন্সিল; ধৰ্ম্মদাস বঃ নিস্তারিণী, ১৪ কলিকাতা ৪৪৬; বলভদ্র ব: ভবানী,৩৪ কলিকাতা ৮৫৩)।

Viewing 2 posts - 1 through 2 (of 2 total)
Reply To: হিন্দু আইনে উইলের কোনও ব্যবস্থা দেখিতে পাওয়া যায় না – শ্রীবিভূতিভূষণ মিত্র
Your information:




%d bloggers like this: